সালামি এক বিরাট আতঙ্কের নাম | বাংলা টাইপোগ্রাফি ডিজাইন

ঈদের দিন সালামি বি...রা...ট এক পশুর হাট থুক্কু আতঙ্কের নাম। আপনি জীবনে যাদেরকে চিনেন না। কোনো দিন দেখা হয়েছে বলে মনে হয় না। তারাও আপনার কাছে সালামির জন্য ঘোর ঘোর করবে। অথচ, সালামি হাতে পাওয়া মাত্রই এমনভাবে উধাও হয়ে যাবে। পরববর্তীতে ঈদ পর্যন্ত তাকে স্যাটেলাইট দিয়ে ‍খুঁজেও বের করতে পারবেন না। আবার পরবর্তী ঈদে সালামির জন্য এসে হাজির হবে। বিষয়টা নির্বাচনের মতই। এমনভাবে প্রচারণা চালায়, যেন রাস্তা কেটে খাল বানাবে। মাঠ-ঘাট সহ টাইলস লাগিয়ে দিবে। কিন্তু, যেই কোনো রকম নির্বাচনে জয়ী হয়। এরপর আর খুঁজে পাওয়া যায় না। ছোটবেলায় ১০ টাকা সালামি দিলেই খুশিতে লাফালাফি শুরু করতাম। এখনকার পোলাপানকে হাজার টাকার নোট চোখ বাঁকা করে তাকিয়ে থাকে। যেন, তাকে তার পৈত্তিক সম্পত্তি মেরে দিচ্ছি।

ঈদের দিন সালামি এক পশুর হাট থুক্কু আতঙ্কের নাম। সেরা বাংলা টাইপোগ্রাফি ডিজাইন দেখুন।


ইদানীং ভাই-ভাতিজার সংখ্যা একটু বেশিই বেড়ে গিয়েছে। তাই, আতঙ্কে থাকতে একটু বেশিই পছন্দ করি। সমস্যা হল: সবাইকে সালামি দিতে গেলে ফকির হয়ে যাব। কিছু ভাই-ভাতিজাকে বাদ দিতে হবে। কিন্তু, কাকে রেখে কাকে বাদ দেওয়া যায়! দীর্ঘ সময় গবেষণার পর অবশেষে সিদ্ধান্তে নিলাম, যে সকল বাৎসরিক ভাই-ভাতিজাকে সারা বছর স্যাটেলাইট দিয়ে খুঁজেও বের করা না। এদেরকে সালামি দিবো না। এরা একেকটা নিমক হারাম হয়। এদের পিছনে তেল মেনে লাভ নাই। যারা মনে করেন আসলেই কাছের। সম সময় ভালো ব্যবহার করে। সামনে পড়লে সালাম দেয়। তাদেরকে দেওয়া যেতে পারে।

Post a Comment

Thank you for your valuable feedback. We will review your feedback soon.

Previous Post Next Post